Ticker

6/recent/ticker-posts

Adsterra

ত্বকের যত্নে মসুর ডাল। lentils for skin care

ত্বকের যত্নে মসুর ডাল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মসুর ডালের গুঁড়ার সাথে অন্যান্য উপাদান মিশিয়ে ত্বক পরিচর্যায় ব্যবহার করা যায়। মসুর ডাল (lentils) দৈনিক ত্বকের পরিচর্যায় খুবই ভালো কাজ করে।

মসুরের ডালে রয়েছে (lentils nutrition) প্রয়োজনীয় খনিজ, প্রোটিন, ভিটামিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও থায়ামিন, যা ত্বক ভালো রাখতে সহায়তা করে। ত্বকের ধরণ অনুযায়ী উপকরণগুলো মিশিয়ে মাস্ক, স্ক্রাব ও প্যাক হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

ত্বক বিশেষজ্ঞ দীপালি ভরদাওয়াজ বলেন, “মসুর ডাল (lentils) ব্লিচিং এজেন্ট হিসেবে কাজ করে এবং দৈনিক ব্যবহারে ত্বকে ইতিবাচক বা ভালো পরিবর্তন আসে। মসুর ডাল ত্বক এক্সফলিয়েট করে দাগ দূর করতে খুবই কার্যকর।

রূপবিশেষজ্ঞ সুপর্ণা ত্রিখা বলেন, মসুর ডাল ভেজানো পানি 'প্যাকে’ ব্যবহার করা হলে তা খনিজ সরবারহ করে থাকে।

ত্বকের ধরন অনুযায়ী মসুর ডালের(lentils) সাথে অন্যান্য উপকরণ মিশিয়ে ব্যবহার করলে ইতিবাচক বা ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

ত্বকের-যত্নে-মসুর-ডাল
ত্বকের-যত্নে-মসুর-ডাল 

ত্বকের যত্নে মসুর ডাল এর প্যাক:

১. দুধ ও ডিমের সাদা অংশের সাথে মসুর ডাল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। প্যাকটি ত্বকে লাগিযে পুরোপুরি শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি ত্বক টানটান ও সতেজ রাখতে খুবই কার্যকর। (lentils meaning in bengali)

প্যাকটি ব্যবহারের পর ভালোকরে পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। 

২. মসুর ডাল বয়সের ছাপ কমাতেও কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। রোদে পোড়া ভাব কমাতে প্যাক তৈরিতে এই ডালের গুঁড়ার সাথে শুকনো ফল যোগ করলে আরও ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। যেমন, মসুর ডালের গুঁড়ার সাথে মেশানো যায় আখরোট গুঁড়া ও বেসন ইত্যাদি।

৩. দুধের সাথে মসুরের ডাল (lentils) ভালোভাবে পেস্ট করে ত্বকে লাগালে ত্বকে খুব ভালো কাজ করে। মিশ্রণটি ত্বকে হালকা মালিশ করে পুরোপুরি শুকানোর পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তারপরে ভালো একটা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

এটা ত্বকের মৃতকোষ, দূষণ, বাড়তি তেল দূর করতে সাহায্য করে। দুধ ত্বকে আর্দ্রতা বজায় রাখে। প্রতিদিন একবার ব্যবহারে ত্বকের দাগ ছোপ দূর হয়।

৪. শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে মধুর সাথে মসুর ডালের গুঁড়া মিশিয়ে ত্বকে নরমভাবে মালিশ করে ২০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেললে অনেকটা উপকার পাবেন।

তৈলাক্ত ত্বকের ফেইস প্যাকের সাথে ভিনিগার যোগ করলে উপকার পাওয়া যাবে, সাধারণ ত্বকে বা skin টকদই ও সাদা ভিনিগার মিশিয়ে প্যাকটি তৈরি করে হালকা মালিশ করে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সাদা ভিনিগারের বদলে লেবু রস যোগ করতে পারেন।

৫. মসুরের ডালের গুঁড়ার সাথে ভেজানো মটরের ডাল, কাঠ বাদামের তেল, গ্লিসারিন ও গোলাপ জল মিশিয়ে ফেইস প্যাক হিসেবে ব্যবহার করলে ব্রণ দূর করতে খুব ভালো কাজ করে। যাদের ত্বক শুষ্ক তারা এর সাথে মধু মিশিয়ে ব্যবহার করলে অনেকটা উপকার পাবেন।

ত্বকে যত্নে যা যা ভূমিকা মসুরের ডালের :

১। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।
২। ত্বকের কালো ভাব দূর করে।
৩। ত্বক বা স্কিনকে টান টান রাখে।
৪। ত্বকের বযসের ছাপ দূর করে।
৫। ত্বকের রঙ ফর্সা করে।
৬। ত্বকের লুকানো ময়লা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে।

মনে রাখতে হবে

মসুরের ডালের গুঁড়া ব্ল্যাক হেডস (black heads) ও হোয়াইট হেডস (white heads) দূর করতে সাহায্য করে। তবে এই ডাল সপ্তাহে একাধিকবার ব্যবহার ত্বককে কিছুটা শুষ্ক করে ফেলে, তাই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা খুবই প্রয়োজন।

যাদের ত্বক সংবেদনশীল ও মাত্রাতিরিক্ত শুষ্ক তাদের মসুর ডাল ব্যবহার না করাই ভালো। ত্বকে মধ্যে ব্রণ, র‍্যাশ বা অ্যালার্জি থাকলে ত্বকে এইসব উপাদান ব্যবহারের আগে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন। বয়সের ছাপ দূর করার উপায়

মুখের ব্রন দূর করার ঘরোয়া উপায় 

১৩টি প্যাকেই বৃদ্ধি পাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা 

ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডস দূর করার উপায় 


Post a Comment

1 Comments

Don't Share Any Link