Ticker

6/recent/ticker-posts

Adsterra

গোলাপ জলের ১২টি উপকারিতা | Rose Water benefits in Bengali

আমাদের রোজকার ব্যস্ত জীবনে নিজেকে সুন্দর দেখতে আমরা সবাই চাই। তবে ত্বকের যত্ন করতে আমরা প্রায় ভুলেই যাই সময়ের অভাবে। কিন্তু তার জন্যই ত্বকের নানা রকম সমস্যায় ভুগতে হয়। আর এ থেকে মুক্তি পাওয়া খুবই কঠিন হয়। 

আজ বলব এমন কিছু সমাধান, যা মিনিটের মধ্যেই আপনার ত্বককে সুন্দর রাখতে সহায়তা করবে। গোলাপ জলের নাম তো সবাই জানি। কিন্তু আসলে গোলাপ জল (Rose Water) ঠিক কিভাবে সহায়তা করে চলুন দেখে নেওয়া যাক।

গোলাপ জলের ব্যবহার কম-বেশি আমরা সবাই করি বা করেছি কখনো না কখনো। গোলাপজল ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তিতো দেয়ই এ ছাড়াও গ্লোয়িং এবং হেলদি রাখতেও ভীষণ ভাবে সাহায্য করে।

গোলাপ-জলের-উপকারিতা
গোলাপ জলের উপকারিতা

গোলাপ জলের ১২ টি উপকারিতা (Benefits of Rose Water):

১. টোনার হিসেবে গোলাপজল

গোলাপ জলকে টোনার (Rose water toner) হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। এটি ত্বকের পিএইচ (PH) ভারসাম্যকে ঠিক রাখে। ফেসিয়ালের সময় ব্যবহার করুন গোলাপ জল। এতে ব্রণ কমে যাবে আর ব্রণ ওঠাও কমবে। ফেসিয়ালের পর যদি মুখে ফুসকুড়ি হয়, তাহলে গোলাপজল লাগিয়ে নিন কমে যাবে।

২. গোলাপজল ও তৈলাক্ত ত্বক 

তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা অনেকেরই আছে এর ফলে নানা রকম সমস্যায় পড়তে হয়। অনেক কিছু করেও অতিরিক্ত তেলকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। এই অতিরিক্ত তেলকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ব্যবহার করুন গোলাপজল। 

গোলাপজল অতিরিক্ত তেলকে নিয়ন্ত্রণ করে আর ত্বকের ছিদ্র গুলিকে প্রয়োজন মত খুলে দেয় যার ফলে বাতাস চলাচল করতে পারে।

৩. গোলাপজল ও ক্লিনজার 

টোনারের সাথে ক্লিনজার হিসেবেও খুব ভালো কাজ করে গোলাপজল (Rose Water)। ফেসওয়াশ দিয়ে মেক-আপ তোলার পরিবর্তে গোলাপজল ব্যবহার করুন, এতে সুন্দর ভাবে মেকআপ উঠে যায় এবং ত্বক নরমও থাকে। 

এছাড়াও মুখে জমে থাকা ময়লা যেগুলো সাধারণ ভাবে ওঠে না, সেগুলোকে গোলাপজল খুব সুন্দর ভাবে তুলে ত্বককে ভেতর থেকে পরিষ্কার- পরিচ্ছন্ন রাখে। হেলদি স্কিনের জন্য সবথেকে আগে দরকার স্কিনকে ভেতর থেকে পরিষ্কার রাখা। এই ময়লা জমে নানা রকম সমস্যা আসতে থাকে, তাই স্কিনকে আগে পরিষ্কার করুন গোলাপজল দিয়ে।

৪. ক্লান্তি দূর করতে গোলাপজল

অফিস থেকে ফিরে খুবই ক্লান্ত লাগে? এতেও ব্যবহার করুন গোলাপজল। স্নানের জলে একটু গোলাপজল মিশিয়ে স্নান করুন দেখবেন অনেকটা ফ্রেশ লাগছে। এতে মধ্যে রয়েছে এমন কিছু উপাদান, যা শরীর ও মনের ক্লান্তি দূর করে এক ধরণের সতেজ অনুভূতি দেয়।

ত্বকের-যত্নে-গোলাপজল
ত্বকের যত্নে গোলাপজল 
৫. ত্বকের সমস্যায় গোলপজল (Rose water for skin)

গোলাপজলে রয়েছে অ্যাণ্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান, যা ত্বককে সুন্দর রাখার পাশপাশি ত্বকের বিভিন্ন রোগ যেমন– ডারমাটাইটিস এর মতো রোগ সারাতে সহযোগিতা করে।

৬. গোলাপজল ও বিভিন্ন দাগ 

ব্রন বা অন্যান্য ফুসকুড়ি, বিভিন্ন দাগ, ত্বক ফেটে যাওয়া, ডার্ক সার্কেলের মত সমস্যাকে খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণ করে।

৭. গোলাপজল ঘুমাতে সাহায্য করে

আপনার কি ঘুমের সমস্যা আছে? কিছুতেই ভালো ঘুম হয় না? আর ওষুধ খেতেও ভালো লাগে না? তাহলেও ব্যবহার করুন গোলাপজল। বালিশে কয়েকফোঁটা গোলাপজল দিন এর মিষ্টি সুবাস আপনার মেজাজ ফুরফুরে করে, আপনকে ভালো ঘুমাতে সহায়তা করে।

৮. গোলাপজল ও শুষ্ক ত্বক  

ত্বক খুবই শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে বা শুষ্ক ত্বক? চিন্তা নেই লাগান গোলাপজল, এটি প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে ফলে ত্বক তার নিজের আর্দ্রতা ফিরে পায়। আপনার ত্বক হয়ে উঠবে দারুণ মসৃণ ও সুন্দর। (Dabur gulabari rose water)

৯. এস্ট্রিঞ্জেন্ট

গোলাপজল এস্ট্রিঞ্জেন্ট এর মতো কাজ করে। যার ফলে আপনি যখনি নিজের ত্বকে গোলাপ জলের ব্যবহার করেন, তখন তা আপনার ত্বক থেকে ধুলো দূর করতে সহায়তা করে।

১০. গোলাপ জলে এন্টি-অক্সিডেন্ট ভরপুর

গোলাপ পানির মধ্যে প্রচুর পরিমাণে এন্টি-অক্সিডেন্ট থাকে। এ কারণে গোলাপ জল এন্টি-এজিং হিসাবে ব্যবহার করা হয়, এন্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের কোষ গুলিকে ভেতর থেকে দৃঢ়তা প্রদান করে তা সতেজ রাখে. যাতে করে মুখের ত্বক টানটান থাকে।

১১. গোলাপজল ও অন্যান্য সমস্যা 

ছেলেদের শেভিং করার পর ত্বক শুষ্ক, লাল হয়ে যায়। অনেক সময় চুলকানি হয় এই সমস্যা থেকে আপনাকে মুক্তি দেবে গোলাপজল। ত্বককে নরম তো করবেই তার সাথে সুন্দর ত্বকের উজ্জ্বলতা দেবে, যা বাজারের ক্রিমের থেকে অনেক ভালো কাজ করবে।

চুলে-গোলাপ-জলের-ব্যবহার
চুলে গোলাপ জলের ব্যবহার
১২. গোলাপজল চুলের জন্য

সবশেষেই বলব গোলাপজলের খুব ভালো গুণ হলো এটি ত্বকের সাথে চুলেরও খেয়াল রাখে। লম্বা চুলের স্বপ্ন সবারই থাকে কিন্তু এই চুল মনের মতো করতে গিয়ে নানা রকম সমস্যায় পড়তে হয়। 

যদি চুল সহজে না বারে তাহলেও গোলাপজল আর যদি খুশকির সমস্যা থাকে তাহলেও গোলাপজল জাদুর মতো কাজ করবে। একটু গোলাপজল এবং একটু নারকেল তেল নিয়ে খুশকির জায়গায় দিন হালকা ম্যাসাজ করুন, দেখবেন কিছু দিনের মধ্যেই খুশকি একেবারে উধাও।

আরও পড়ুন। 

বাড়িতে কিভাবে গোলাপ জল তৈরি করবেন (How To Make Rose Water at Home)?

  • ১টি কাচের পাত্রে পরিষ্কার জল নিয়ে তারমধ্যে ২টা গোটা গোলাপের পাপড়ি দিয়ে সারাদিন ভিজিয়ে রাখুন। এবার মিশ্রণটি সারারাত বাইরে রেখে দেওয়ার পর, পরের দিন যখন দেখবেন জলের রং পরিবর্তন হয়েছে তখন কাঁচের জারে গোলাপের পাপড়ি দিয়ে এটি ফ্রিজে সংরক্ষণ করে রাখুন। ছয় মাস পর্যন্ত এটি ভালোই থাকবে।

ইতিমধ্যেই আমরা আজকের নিবন্ধ থেকে গোলাপ জলের বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে জেনে গিয়েছি। যদিও গোলাপজল আমাদের কাছে কোনও নতুন রূপচর্চার উপাদান নয়, যা আমাদেরকে জানিয়ে বা শিখিয়ে দিতে হবে। কিন্তু গোলাপ জলের উপকারিতা সম্পর্কে হয়তো আমরা অনেকেই জানি না বা গোলাপ জল কি কি কাজে ব্যবহৃত করা যায় সেটা হয়তো আমাদের সবার ঠিকমতো জানা থাকতে নাও পারে। সে কারণেই আজকের এই নিবন্ধ।

যাতে আপনারা সহজেই জানতে পারেন গোলাপ জল কিভাবে আমাদের রূপচর্চায় ব্যবহার করা যেতে পারে। তাহলে আর অপেক্ষা কিসের সুন্দরের পিপাসু তো আমরা সকলেই, তবে আজ থেকেই আপনার রূপচর্চায় গোলাপজলকে স্থান দিয়ে দিন। আর গোলাপ জল ব্যবহার করে আপনারা কেমন আছেন সেটা অবশ্যই আমাদেরকে জানাবেন।

আরও পড়ুন।

বয়সের ছাপ দূর করার উপায়



Post a Comment

2 Comments

Don't Share Any Link